চাঁদে যৌথভাবে গবেষণাকেন্দ্র নির্মাণ করতে যাচ্ছে চীন ও রাশিয়া

চুক্তি স্বাক্ষর করেছে দেশ দু’টি। রুশ মহাকাশ সংস্থা রসকসমস বরাত দিয়ে স্পেস নিউজ জানিয়েছে, চাঁদের ভূখণ্ডে বা কক্ষপথে অথবা উভয়স্থানেই গবেষণাকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করতে চীনের ন্যাশনাল স্পেস অ্যামিনিস্ট্রেশনের সঙ্গে চুক্তি করেছে তারা। এছাড়া উভয় দেশের মহাকাশ সংস্থা থেকে দেওয়া বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, দুই দেশ একে অপরের প্রয়োজনে পাশে পাবে।
বিবিসি জানায়, প্রথম মনুষ্যবাহী মহাকাশযান উৎক্ষেপণের ৬০ বছরপূর্তি উদযাপনের উপলক্ষ্যে রাশিয়ার প্রস্তুতির মধ্যেই উভয় দেশের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা সামনে এলো। ২০২০ সালের জুলাই মাসে রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থার প্রধান দিমিত্রি রগোজিন বলেছিলেন, তার দেশ ও চীন একসঙ্গে চাঁদে গবেষণা করতে চায়। সে জন্যই চাঁদে একটি মহাকাশকেন্দ্র তৈরি করতে চান তারা। তিনি জানিয়েছিলেন, মহাকাশ গবেষণার ক্ষেত্রে চীন সম্প্রতি খুবই উন্নতি করেছে। তাই তাদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে চললে রাশিয়া লাভবান হবে।
ডয়চে ভেলে জানায়, চাঁদের মাটিতে ও তার কক্ষপথে জটিল গবেষণা করার অবকাঠামো থাকবে।এরকমই পরিকল্পনা রয়েছে দুই দেশের।
২০১৪ সাল থেকে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্কের ক্ষেত্রে রাশিয়া ও চীন একে অপরের কাছাকাছি এসেছে। সে সময় রাশিয়ার ইউক্রেন দখল করে নেওয়ার পর পশ্চিমা দেশগুলোর সঙ্গে মস্কোর সম্পর্ক খারাপ হওয়া শুরু হয়। চীনের সঙ্গেও যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের দেশগুলোর সম্পর্ক উঠানামা করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.