নির্বাচন প্রক্রিয়ার সংস্কার চান মাহবুব তালুকদার, সিইসি বললেন তিনি নির্বাচন কমিশনকে হেয় করতে ভিন্ন স্বার্থ নিয়ে কাজ করছেন

মঙ্গলবার (২ মার্চ) সকালে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনের অডিটরিয়ামে ভোটার দিবসের অনুষ্ঠানে তারা এসব কথা বলেন্।
প্রধান নির্বাচন কমিশনার কেএম নুরুল হুদা বলেন, নূরুল হুদা অভিযোগ করলেন, ‘ব্যক্তিগত স্বার্থে ও উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে’ ইসিকে ‘হেয়’ করে চলেছেন কমিশনের এই সদস্য। তিনি জানান, তৃতীয় লিঙ্গের বাইরে সবাইকে ভোটার করা হবে। বাংলাদেশে বর্তমানে ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি ১৭ লাখ ২০ হাজার ৬৬৯ জন।
নূরুল হুদা বলেন, মাহবুব তালুকদার সাহেব অভ্যাসগতভাবে সারাজীবন আমাদের এ নির্বাচনে যোগ দেওয়ার পরদিন থেকে যা কিছু ইসির নেগেটিভ দিক, তা পকেট থেকে একটা কাগজ বের করে পাঠ করতেন। আজকে এর ব্যতিক্রম হয়নি। এ নির্বাচন কমিশনে যোগ দেওয়ার পর যতগুলো সভা হয়েছে, সব সময় মাহবুব তালুকদার ‘একই আচরণ’ করে আসছেন। এ কমিশনের আরও এক বছর মেয়াদ আছে, তিনি হয়ত তা চালিয়েই যাবেন।
সিইসির ঠিক আগেই অনুষ্ঠানে নিজের লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান মাহবুব তালুকদার। সেখানে তিনি বরাবরের মতই দেশের নির্বাচন পরিস্থিতি এবং কমিশনের ভূমিকা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, নির্বাচন প্রক্রিয়ার সংস্কার না হলে নির্বাচন ব্যবস্থা ভেঙে পড়বে, এক কেন্দ্রিক স্থানীয় নির্বাচনের তেমন গুরুত্ব নেই। নির্বাচনে মনোনয়ন লাভই এখন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। স্থানীয় নির্বাচনেও হানাহানি, মারামারি, কেন্দ্র দখল, ইভিএম ভাঙচুর ইত্যাদি মিলে এখন অনিয়মের মডেল তৈরি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *