বাইডেনের পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত বিশ্বের প্রতি বাংলাদেশের সমর্থন

গত শুক্রবার জাতিসংঘের বেশ কিছু সদস্যরাষ্ট্র আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে এ প্রতিশ্রুতির কথা জানান জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী সাংবাদিক ইব্রাহিম চৌধুরী।
রাবাব ফাতিমা বলেন, পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের প্রতি অটল থাকা বাংলাদেশের সাংবিধানিক প্রতিশ্রুতি। যার ফলে এই চুক্তি স্বাক্ষরকারী প্রথম ৫০টি দেশের মধ্যে রয়েছে বাংলাদেশও। তিনি ১৯৭৪ সালে সাধারণ পরিষদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে উদাত্ত আহ্ববান জানিয়েছিলেন, তা উল্লেখ করেন। পারমাণবিক অস্ত্রের অমানবিক ও বিধ্বংসী পরিণতির কথা তুলে ধরে রাবাব ফাতিমা যেসব রাষ্ট্র এখনো এই চুক্তি স্বাক্ষর করেনি, তাদের সই করার আহ্ববান জানান, যাতে এটির সর্বজনীন প্রয়োগ করা সম্ভব হয়।
যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক, সুইজারল্যান্ডের জেনেভা ও অস্ট্রিয়ার ভিয়েনায় একযোগে আয়োজিত হয় এই ভার্চ্যুয়াল অনুষ্ঠান। এতে অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগ দিয়েছে বাংলাদেশও।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্ববানে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশ ২০১৭ সালের ২০ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের পারমাণবিক অস্ত্র নিষিদ্ধকরণ চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। পরে জাতিসংঘের ৭৪তম অধিবেশন চলাকালে ২০১৯ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর চুক্তিটি অনুসমর্থন করে বাংলাদেশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.