আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান রোজা রেখে ম্যাচ খেলেছেন

খেলাধুলা ডেস্ক ।।

শুরু হয়েছে মুসলমানদের পবিত্র রমজান মাস। এই মাসে আল্লাহ’র সন্তুষ্টি লাভের আশায় প্রতিদিন সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত সকল প্রকার পানাহার থেকে বিরত থাকেন মুসলিম ধর্মানুসারীগণ। ক্রীড়া জগতের অনেক মুসলিম তারকাও এসময় রোজা রেখেই মাঠের লড়াইয়ে নামেন।

সানরাজার্স হায়দ্রাবাদের দুই আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান রোজা রেখেই আইপিএলের এলিমিনেটর রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন। আর এতে বিস্ময় প্রকাশ করে তাদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তাদের সাবেক সতীর্থ ও বর্তমানে দিল্লি ক্যাপিটালসের ওপেনার শিখর ধাওয়ান।

ম্যাচ শেষে রশিদ ও নবীর সঙ্গে এক ছবি টুইটারে শেয়ার করে ধাওয়ান লিখেছেন, ‘সবাইকে রমজানের শুভেচ্ছা। তাদের (রশিদ ও নবী) নিয়ে আমি গর্বিত। সারাদিন রোজা রেখে এবং এরপর ম্যাচ খেলা মোটেই সহজ নয়। কিন্তু তারা এটা করে দেখিয়েছে। দুজনেই তাদের দেশ এবং পুরো বিশ্বের জন্য অনুপ্রেরণা। তোমাদের শক্তি সবাইকে বড় স্বপ্ন দেখতে উৎসাহ যোগাবে। তোমাদের ওপর আল্লাহ’র রহমত বর্ষিত হোক।‘

আইপিএলের চলতি মৌসুমের শুরুতেই দিল্লিতে যোগ দেওয়া ধাওয়ান মনে করেন, পবিত্র রমজানে সারাদিন রোজা রেখে খেলা মোটেই সহজ কাজ নয়। ম্যাচটা যদিও রশিদ-নবীর দল দিল্লির কাছে হেরে গেছে, তবু এ দুই আফগান তারকা ঠিকই নিজেদের সেরাটা দিয়েছেন। 

ব্যাট হাতে ১৩ বলে ৩টি চার ও ১ ছক্কায় ২০ রান করেছেন ৩৪ বছর বয়সী নবী। বল হাতে ৪ ওভারে ২৯ রান খরচ করে কোনো উইকেট না পেলেও তার ইকোনমি রেট ছিল ৭.২৫।

অন্যদিকে ২০ বছর বয়সী রশিদ খান ব্যাট হাতে গোল্ডেন ডাক পেলেও বল হাতে ছিলেন দুর্দান্ত। ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান খরচ করে ২টি উইকেট তুলে নিয়েছেন এই লেগ স্পিনার। 

আইপিএলের প্লে-অফ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় রশিদ ও নবী এখন আসন্ন বিশ্বকাপকেই পাখির চোখ করছেন। আর শুক্রবার (১০ মে) চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হবে ধাওয়ানের দিল্লি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *