২৫ বিঘা পর্যন্ত হলে কোনও ভূমি উন্নয়ন কর দিতে হয় না: ভূমিমন্ত্রী

image_pdfimage_print

দেশের জলভাগ বা স্থলভাগের আয়তন জানাতে পারেননি ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। সংসদের প্রশ্নোত্তরে রবিবার (৩১ জানুয়ারি) এম. আবদুল লতিফের এ সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে ভূমিমন্ত্রী জানান, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো (বিবিএস) সূত্রে বা অন্য কোনও সরকারি সংস্থার কাছ থেকে সুনির্দিষ্টভাবে জলভাগ এবং স্থলভাগের আয়তন সম্পর্কিত কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।
দেশের জনগণের কল্যাণে স্থলভূমি অর্থাৎ কৃষিজমি, বনভূমি এবং জলাভূমি সংরক্ষণের জন্য ভূমি মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট অন্যান্য মন্ত্রণালয় প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে বলেও মন্ত্রী জানান।
মোজাফফর হোসেনের (জামালপুর-৫) প্রশ্নের জবাবে ভূমিমন্ত্রী জনান, ব্যক্তি ও পরিবারভিত্তিক কৃষি জমির মোট পরিমাণ ৮.২৫ একর অর্থাৎ ২৫ বিঘা পর্যন্ত হলে কোনও ভূমি উন্নয়ন কর দিতে হয় না। উক্ত মওকুফের আওতায় ইক্ষু আবাদ, লবণ চাষের জমি এবং কৃষকের পুকুর (বাণিজ্যিক মৎস্য চাষ ব্যতিত) অন্তর্ভুক্ত হবে। ভূমি উন্নয়ন কর মওকুফের আওতাধীন কৃষি জমির সংশ্লিষ্ট প্রতিটি হোল্ডিং এর জন্য আবশ্যিকভাবে বার্ষিক ১০ টাকা হারে আদায় করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *