সেরামের টিকার দাম ১ ডলার কমছে, বাংলাদেশের জন্য!

image_pdfimage_print

ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের বিবেচনা, ক্রয়ের আদেশ, চালান, প্রদানের শর্তাদি ও অগ্রিম প্রদানের গ্যারান্টি ধারার ৪ এর ২ এ বলা হয়েছে, ভারত সরকার সেদেশের টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সেরাম থেকে যে দামে টিকা কিনবে একই দামে টিকা পাবে বাংলাদেশ। কিন্তু ভারত যদি চার ডলারের বেশি দামে কিনে বাংলাদেশকে বেশি দিতে হবে না।
সোমবার ভারতের স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল সিএনবিসি-টিভি ১৮ এর বরাত দিয়ে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারত সরকার সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি করে প্রতি ডোজ টিকার মূল্য নির্ধারণ করেছে ২০০ রুপি (২.৭২ ডলার) করে।
এ বিষয়ে বেক্সিমকোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাজমুল হাসান পাপন বলেন, চুক্তি অনুযায়ি ভারতীয় সরকারের কেনা ক্রয় মূল্যের চাইতে আমাদের বেশি দিতে হবে না। এর থেকে কোনো ব্যত্যয় হবে না।
একটি সূত্রে জানা গেছে, ভারত প্রথম দফায় সেরামের প্রতি ডোজ টিকা কিনতে যাচ্ছে ২০০ রুপি (২.৭২ ডলার) করে। দ্বিতীয় দফায় কিনছে আড়াই’শ রুপি এবং তৃতীয় দফায় কিনছে তিন’শ রুপি করে। এভাবে ভারতের গড় ক্রয়মূল্য হতে পারে ৩ ডলার। এই তথ্যগুলো আমরা এক্ষুনি নিশ্চিত করতে পারছি না। কিন্তু ভারত যতো দামে কিনবে আমাদের একই দামে কিনতে হবে এটা নিশ্চিত।
বাংলাদেশ যদি প্রথমে বেশি দামে নিয়েও নেয় তবে পরবর্তিতে টাকার সমন্বয় হবে। সরকারের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র জানায়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী টাকা ফেরত নেওয়ার চাইতে অবশিষ্ট টাকা দিয়ে ভ্যাকসিন কিনে আনার পক্ষপাতী। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশ একই টাকা অতিরিক্ত ১ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন পেয়ে যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *