সেনাশাসনের বিরুদ্ধে টানা দ্বিতীয় দিনের মতো উত্তাল মিয়ানমার

image_pdfimage_print

রাষ্ট্রের আগ্রাসন থেকে বাঁচতে শিল্পের সহায়তা নিচ্ছেন অনেক বিক্ষোভকারী। দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনের রাস্তা দখল করে নিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। জানা গেছে, শহরটিতে ইন্টারনেট পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অভ্যুত্থানের পর সামান্য পরিসরে সেবা চালু ছিলো। বিক্ষোভকারী গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সুচির ছবি হাতে মিছিল করছেন।
এই বিক্ষোভের প্রতিক হিসেবে ব্যবহার হচ্ছে ওয়েব সিরিজ হাঙ্গার গেমের তিন আঙুলে স্যালুট দেওয়ার ছবি। অনেকে এর সমর্থনে লাল বেলুন নিয়ে হাজির হচ্ছেন। বিক্ষোভের সমর্থনে গাড়ি ও বাস থেকে একযোগে বাজানো হচ্ছে হর্ন। বিক্ষোভকারী মেও উইন এএফপিকে বলেন, ‘আামরা যতক্ষণ গণতন্ত্র না পাই, এই আন্দোলন চালিয়ে যাবো।’
অবশ্য এখন পর্যন্ত সামরিক জান্তা সরকারকে এই আন্দোলন ঠেকাতে তেমন উদ্যোগ নিতে দেখা যায়নি। তবে আন্দোলনকারীদের মতে, তারা খুব দ্রুতই খড়গহস্ত হবে। তারা বলছেন, পূর্বের অভিজ্ঞতা বলছে, সামরিক বাহিনী শুরুতে পর্যবেক্ষণ করে, এরপর চরম আঘাত করে।
অনেক মানুষ তাদের জানালায় লাল স্টিকার লাগিয়ে ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমাক্রেসি-এনএলডির প্রতি সমর্থন জানিয়েছে। পুলিশ তাদের দাঙ্গার ঢাল ও কাঁটাতারের ব্যবহার করে রাস্তা অবরোধ করেছে। এছাড়া সাবধানতা হিসাবে কিছু জায়গায় জল কামান স্থাপন করা হয়েছে। এসময় বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে গোলাপ এবং পানির বোতল দেয় এবং আহ্বান জানায় তারা যেন নতুন সরকারকে নয় বরং সাধারণ মানুষকে সমর্থন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *