সুইজারল্যান্ডে নিকাব নিষিদ্ধ হতে পারে, ৭ মার্চ গণভোট

image_pdfimage_print

‘বোরকা’ নিষিদ্ধ হতে পারে এমন শঙ্কায় অস্বস্তিতে রয়েছে দেশটির মুসলিমরা।
৩২ বছর বয়সী ভ্যালেন্টিনা নামের এক নারী আল-জাজিরাকে বলেন, আমি যখন নিকাব পরি তখন নিজেকে নিরাপদ মনে হয়। আমি মুসলিম হিসেবে এটাই আমার পছন্দের পোশাক।
সুইজারল্যান্ডে প্রস্তাবিত আইনে বলা হয়েছে কেউ জনসম্মুখে কিংবা লিঙ্গের ভিত্তিতে মুখ ঢাকতে পারবে না। তবে স্বাস্থ্যগত কারণে কিংবা ঐতিহ্যবাহী উৎসবে নিকাব পরতে পারবে।
.স্থানীয় গণমাধ্যমে চালানো জরিপে দেখা গিয়েছে সুইজারল্যান্ডের মুসলিমরা মনে করেন সমাজে তাদের একঘরে করে রাখার জন্যই এমন আইন প্রণয়ন করতে যাচ্ছে দেশটির সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *