সিলেটে প্রধানমন্ত্রীর উপহার ‘স্বপ্ননীড়’ পাচ্ছে ৪ হাজার পরিবার

image_pdfimage_print

সিলেটে ৪ হাজার ১৭৮ পরিবার পাচ্ছে মাথা গোঁজার ঠাঁই। প্রধানমন্ত্রীর উপহারের নিজস্ব ঠিকানা স্বপ্নের নীড় পাচ্ছে তারা। তাদের মধ্যে আগামী শনিবার (২৩ জানুয়ারি) ১৪০৬টি ঘরের চাবি তুলে দেওয়া হবে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এগুলোর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ওই দিন সকাল সাড়ে ৯টায় সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে এর উদ্বোধন অনুষ্ঠান হবে।
বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) সিলেট জেলা প্রশাসকের হল রুমে প্রেস কনফারেন্সে এ তথ্য জানান জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম। তিনি জানান, বাকী ঘর গুলোও নির্মানের প্রক্রিয়া চলছে।
দেশের বিপুলসংখ্যক ভূমিহীন-গৃহহীন মানুষকে নিজস্ব ঠিকানা অর্থাৎ জমির মালিকানাসহ সরকারী খরচে নির্মিত বাড়ি নির্মাণ করে দেয়ার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের সামনে আরেকটি মানবতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে যাচ্ছেন।
জেলা প্রশাসক এম কাজী এমদাদুল ইসলাম জানান, সিলেটে ভূমিহীন-ঘরহীন ‘ক শ্রেণির’ ৪১৭৮জন মানুষকে মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিতে ঘর তৈরি করে দিচ্ছে সরকার। ইতোমধ্যে ১৪০৬টি ঘর প্রস্তুত করে উপকারভোগীদের সমঝিয়ে দেয়া হয়েছে।
জেলা প্রশাসক আরও জানান, প্রতিটি ঘর নির্মাণে খরচ হচ্ছে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা। প্রতিটি ঘরে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাঘর ও একটি বাথরুম রাখা হচ্ছে।
সিলেট জেলার মধ্যে সিলেট সদরে ১৪৪টি, দক্ষিণ সুরমায় ১২০টি, বিশ্বনাথে ৬৬৯টি, ওসমানীনগরে ৫৩৩টি, বালাগঞ্জে ৮৭৫টি, বিয়ানীবাজারে ১০৪টি, গোলাপগঞ্জে ২০০টি, ফেঞ্চুগঞ্জে ১৩০টি, গোয়াইনঘাটে ৫০০টি, কানাইঘাটে ১৯৪টি, জৈন্তাপুরে ৩৩০টি, জকিগঞ্জে ১৩০টি এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় ২৫০টি ঘর নির্মাণ করে দিচ্ছে সরকার।
তার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করবেন, সিলেট সদরে ১৭টি, দক্ষিণ সুরমায় ১৫টি, বিশ্বনাথে ১২০টি, ওসমানীনগরে১৪০টি, বালাগঞ্জে ১৪০টি, বিয়ানীবাজারে ৫০টি, গোলাপগঞ্জে ৭৭টি, ফেঞ্চুগঞ্জে ৭২টি, গোয়াইনঘাটে ২৫০টি, কানাইঘাটে ১৯৪টি, জৈন্তাপুরে ১২০টি, জকিগঞ্জে ৫৫টি, কোম্পানীগঞ্জ ১১৭টি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *