সংসদ সদস্য পদ হারাচ্ছেন পাপুল

image_pdfimage_print

অর্থ ও মানবপাচারের অভিযোগে লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য শহীদ ইসলাম পাপুলকে ৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন কুয়েতের একটি আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১৯ লাখ কুয়েতি রিয়াল (৫৩ কোটি ১৯ লাখ ৬২ হাজার টাকা) জরিমানা করা হয়েছে।
কুয়েতের আদালতে ফৌজদারি অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় পাপুলকে সংসদ সদস্য পদ হারাতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আইনজ্ঞরা।
সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মনজিল মোরসেদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী পাপুলের পদ বাতিল হয়ে যাবে। আর স্পিকারকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে কত দিনের মধ্যে সেটা উল্লেখ নেই। স্পিকার চাইলে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিতে পারেন আবার রায়ের কপির জন্য অপেক্ষাও করতে পারেন।
সুপ্রিম কোর্ট বারের সহ সম্পাদক ব্যারিস্টার ইমতিয়াজ ফারুক বলেন, বিষয়টিতে স্পিকারকে রুলিং দিতে হবে। যা হবে দেশে প্রথমবারের মতো। তবে বিদেশের আদালতে সাজা হওয়ায় এখনই তার পদ বাতিল করা সমিচীন হবেনা। কুয়েতের আইনি বিষয়গুলো দেখে তারপর সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে জানান তিনি।
সংবিধানের ৬৬(২) এর ঘ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী, কোনো সংসদ সদস্য নৈতিক স্খলনজনিত কোনো ফৌজদারি অপরাধে দুই বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত হলে এবং মুক্তি পাওয়ার পর পাঁচ বছর অতিক্রান্ত না হলে তিনি আর সংসদ সদস্য হওয়ার যোগ্য বিবেচিত হন না।
এদিকে বাংলাদেশে দুদকও পাপুল, তার স্ত্রী, শ্যালিকা ও মেয়ের বিরুদ্ধে মামলা করেছে। যা এখন বিচারাধীন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *