মিয়ানমারে ফেসবুকসহ সোশ্যাল মিডিয়া বন্ধ করা হলো

image_pdfimage_print

এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির যোগাযোগ মন্ত্রণালয়। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মিয়ানমারে ফেসবুক পরিষেবা বন্ধ থাকবে। ইন্টারনেট সরবরাহকারী ও টেলিকম কোম্পানিগুলোকে এই সিদ্ধান্ত মোতাবেক ফেসবুক বন্ধ রাখতে হবে। কারণ এই মাধ্যমটি ব্যবহার করে মিয়ানমারে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি করা হচ্ছে। মিথ্যা তথ্য, ভুয়া সংবাদ ছড়িয়ে মানুষের মধ্যে ছড়ানো হচ্ছে বিভ্রান্তি। যার কারণে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।
এ বিষয়ে ফেসবুকের মুখপাত্র অ্যান্ডি স্টোন বলেন, মিয়ানমার সরকারকে আমরা দ্রুত ফেসবুক পরিষেবা চালু করার আহ্বান জানাচ্ছি। এতে করে মানুষ তাদের পরিবার, আত্মীয় ও বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারবে। জরুরি তথ্যের আদান করতে পারে।
মন্ত্রণালয় থেকে ফেসবুক বন্ধের নির্দেশ আসার আগেই পরিষেবাটি ব্যয়ভার করতে নানা সমস্যায় পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এই সিদ্ধান্তের ফলে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মিয়ানমারে ফেসবুকের পাশাপাশি ম্যাসেঞ্জার, ইন্সটাগ্রাম, হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করা যাবে না। এসব পরিষেবা বন্ধ থাকবে।
গত নভেম্বরে মিয়ানমারে নির্বাচনে অং সান সুচির দল এনএলডি সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে। কিন্তু সেনাবাহিনী নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তোলে।
গত সোমবার নবনির্বাচিত সংসদের প্রথম বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেনাবাহিনী অধিবেশন স্থগিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানায় । বৈঠক শুরুর প্রাক্কালে তাদের গ্রেফতার করা হয়।এখন সামরিক প্রধান ও অভ্যুত্থানের নেতা মিন উং লাইং দেশ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *