ভারতে ২ বছর কারাভোগের পর দেশে ফিরল ১৯ বাংলাদেশি

image_pdfimage_print

ভারতে ২ বছর কারাভোগের পর ১৯ বাংলাদেশি নারী-পুরুষকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে রোববার রাতে দেশে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ। রোববার রাতেই সকল অনুষ্ঠানিকতা শেষে নারী-পুরুষদের বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।
তারা হলেন- মরিয়ম খাতুন (২০), ফাতিমা আক্তার (২২), খাদিজা পারভিন (২৩), সোনিয়া বেগম (২৩), শেফালি খাতুন (৩০), শারমিন খাতুন (২১), রিমা বেগম (১৮), তানিয়া খানম (২০), রহিমা খাতুন (২১), নাসরিন (১৯), বিউটি খাতুন (২০), রুনা বেগম (২১), রোমেনা খানম (২২), শিল্পী বেগম (২৩), আসমা (২০), পলি খানম (২২), আফরোজা খাতুন (২৩), আজাদুল ইসলাম (২১) ও রুবেল রানা (২৩)।
বেনাপোল চেকপোস্ট পুলিশ ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মহসিন উদ্দিন জানান, ভালো কাজের আশায় দালালের খপ্পড়ে পড়ে গত আড়াই বছর আগে অবৈধপথে ভারতে যায় তারা। ভারতের মুম্বাই শহরে গৃহকর্মীর কাজ করার সময় সেখানকার পুলিশ তাদের আটক করে জেলহাজতে পাঠায়। আদালত তাদের ২ বছরের সাজা দেন। সাজার মেয়াদ শেষে সেখান থেকে রেসকিউ ফাউন্ডেশন নামক একটি এনজিও সংস্থা তাদের মুক্ত করে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। পরে দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি চালাচালির এক পর্যায়ে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে আজ রাতে তাদের দেশে ফেরত পাঠানো হয়।
ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। সেখান থেকে আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করতে এনজিও সংস্থা রাইটস যশোর ৫ জন ও জাস্টিস এন্ড কেয়ার ১৪ জনকে গ্রহণ করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *