বাইডেনের শপথ গ্রহণের আগে ক্যাপিটলে ফের হামলার শঙ্কা

image_pdfimage_print

এ খবর ভার্জ নিউজ এজেন্সির।এ সংস্থা গতকাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারের এক সতর্কতার বরাত দিয়ে জানায়, এ হামলা হতে পারে ১৭ বা ১৮ জানুয়ারি। জানা গেছে ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা বাইডেনের ক্ষমতাগ্রহণ ঠেকাতে এ হামলাকে তার শেষ সুযোগ হিসেবে বেছে নিতে পারেন।
সিএনএন জানায়, গত ৬ জানুয়ারি ইতিহাসের কলঙ্কজনক হামলার পর ট্রাম্প সমর্থকদের পক্ষ থেকে টুইটারে দ্বিতীয় হামলার জন্য উদ্বুদ্ধ করে বলা হয়, যুক্তরাষ্ট্রের জন্ম ১৭৭৬ সালের ৪ জুলাই এবং মৃত্যু ২০২১ সালে ২০ জানুয়ারি। তাই দেশ রক্ষায় এটা শেষ সুযোগ। এমন ভয়াবহ বার্তা নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। যা নিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর এখনই কাজ করা জরুরি।
প্রথমবারের মতো ট্রাম্প পরাজয় মেনে ক্ষমতা হস্তান্তরের কথা স্বীকার করলেও ২০ জানুয়ারি বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে তার না থাকার ঘোষণাও সন্দেহজনক বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। ইতোমধ্যেই স্পিকার ন্যান্সি পেলসি মার্কিন শীর্ষ জেনারেল জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের চেয়ারম্যান মার্ক মিলির সঙ্গে আলোচনা করে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে নিয়ে তার উদ্বেগ প্রকাশ করে আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের তাগিদ দিয়েছেন। ট্রাম্পকে থামাতে এরইমধ্যে অভিশংসন আয়োজনসহ নানা পদক্ষেপ নেওয়ার কথা এসেছে।
সিএনএন ও ভার্জ নিউজ এজেন্সি জানায় ট্রাম্পকে শান্ত দেখাচ্ছে না। এমনি জুনিয়র ডোনাল্ড ট্রাম্পও তার বাবার টুইটার একাউন্ট ব্লক করে নেওয়ার জন্য বাক স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। ট্রাম্পের উগ্র সমর্থকরা বারবার টুইট করে বলছেন, বাইডেনের কাছে আমেরিকা নিরাপদ না। বাইডেনকে রুখে দিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *