বদলে যাচ্ছে চলচ্চিত্র বিনোদনের ক্ষেত্র

image_pdfimage_print

চলচ্চিত্র বিনোদনের ঠিকানা ক্রমশ বদলে যাচ্ছে! পরিচালক মিজানুর রহমান মিজান পরিচালিত রাগী ছবিটি মুক্তি পাবে চীনে। এজন্য সাবটাইটেল করা হচ্ছে। ছবিটি সিঙ্গাপুরভিত্তিক একটি চীনা কোম্পানি ডিজিটাল মাধ্যমকে পুরোপুরি ব্যবহার করেই ছবিটি মুক্তি দিবে। ডিজিটাল পদ্ধতি এখন বিনোদন ক্ষেত্রকে খুবই সহজ করে দিয়েছে। পরিচালক মেহেদী বলেন, হাতের মুঠোতেই বিনোদন এখন কেন্দ্রীভূত।
সেই রকম উপভোগ্য কিছু না হলে দর্শক সিনেমা হলে যেতে চান না। ডিজিটাল পদ্ধতি বিশ্বকে বদলে দিয়েছে। সিনেমা হলে দর্শককে নিতে হলে চলমান পদ্ধতিতে থেকেই নতুন কিছু ভাবতে হবে। একটি শ্রেণী এই পরিস্থিতির মধ্যেই ইউটিউব ব্যবসাকে বেশ রমরমা করে তুলছেন। মিউজিক ভিডিও, স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র, নাটক ও চলচ্চিত্রও তাতে স্থান পাচ্ছে। পরিচালক শামিমুল ইসলাম শামীম বলেছেন, একটি ইউটিউব কোম্পানির সঙ্গে তার কথা হয়েছে। তারা তাকে একটা অংকের বাজেট দেবেন। সেই বাজেটে কোম্পানিটির জন্য একটি ছবি বানিয়ে দিতে হবে।
পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবর একেবারেই কম খরচে একটি স্যাটেলাইট চ্যানেলের জন্য দুটি ছবির নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যে শেষ করেছেন। এই দুটি ছবির একটিতে কাজ সায়মন ও আঁচল। এছাড়া অনন্য মামুন পরিচালিত বড় বাজেটের ছবি নবাব এলএলবি ছবিটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মের আইথিয়েটারে বিজয় দিবসে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে।
এদিকে সিনেমা হলও এখনো সব খোলা হয়নি। প্রদর্শক সমিতির উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস বলেছেন, সব সিনেমা হল খোলা হয়নি। ৮০টির মতো সিনেমা হল খুলেছে। কিন্তু সিনেমা হলের সব খরচ চুকিয়ে লাভ করার মতো কোনো ছবি প্রযোজকরা দিতে পারছেন না। অনেক ছবি নির্মিত হয়ে পড়ে থাকলেও সবাই মহামারী কবে যাবে তার অপেক্ষায় রয়েছেন। ইতোমধ্যে একটি শ্রেণী বিদেশি ছবি মুক্তির দেওয়ার জন্য তৎপর হয়ে উঠেছেন। শেষ পর্যন্ত চলচ্চিত্রশিল্পের সামগ্রিক পরিস্থিতি কি দাঁড়াবে এখনই বলা যাচ্ছে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *