‘পদ বাঁচাতে’ ওবায়দুল কাদের নিজের বাসায় অবরুদ্ধ, বললেন রিজভী

image_pdfimage_print

দুদক হলো বিরোধী দল নির্যাতনের হাতিয়ার আর সরকারী দলের দুর্নীতি ধোয়ার মেশিন।
চসিক নির্বাচন আওয়ামী ইতিহাসের ভোট ডাকাতির আরেকটি নজীরবিহীন দৃষ্টান্ত।
ওবায়দুল কাদের সাহেবের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জার বক্তব্যের উদ্ধৃতি দিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব এমন্তব্য করেন।
অন্যদিকে টিআইবির রির্পোটে দুর্নীতিতে বাংলাদেশের অবস্থান ১৪তম হওয়া তিনি বলেন, আমরা আগেও বলেছি, গণতন্ত্রহীনতার কারণেই বর্তমানে দেশে দুর্নীতি মহামারি আকার ধারণ করেছে।
রুহুল কবির রিজভী বলেন, আওয়ামী নেতারা আত্মমুগ্ধ, চাটুকারদের প্রতি খুব বেশী সংবেদনশীল আর লোভ আছে অতি মাত্রায়। যে কারণে তারা চোখ থাকতেও অন্ধ হয়ে আছে শুধুমাত্র ক্ষমতার রুটির ভাগের জন্য।
রিজভী বলেন, গ্রীড, পাওয়ার ও ট্রেচারীর সমাহার হচ্ছেন আওয়ামী লীগের নেতারা। পদরক্ষার জন্য এবং জোর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে এরা বিবেককে বন্দী রেখে অন্ধের মতো প্রলাপ বকছেন। কাদের সাহেবদের নিশিরাতের সরকার নির্বাচনকে ‘ভোট ডাকাতির কালচারে’ পরিণত করেছে।
গত ২৮ জানুয়ারি কোম্পানীগঞ্জে নাগরিক সভায় কাদের মির্জা বলেছেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব পদ বাঁচাতে অপশক্তির কাছে আত্মসমর্পণ করেছেন। আসলে আপনি মানুষের চোখে ধুলো দিয়ে কতদিন টিকে থাকবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *