নুসরত-নিখিলের ডিভোর্স হচ্ছে? জল্পনা ইনস্টাগ্রামে

image_pdfimage_print

ভারতের পশ্চিম বাংলায় এমন বিয়ে কেউ আগে দেখেনি। ডেস্টিনেশন ওয়েডিং! ২০১৭তে বিরাট কোহলি-অনুষ্কা শর্মা প্রথম এই জিনিস দেখিয়েছিলেন। তারপর পশ্চিম বাংলায় করে দেখিয়েছিলেন অভিনেত্রী তথা তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান এবং ব্যবসায়ী নিখিল জৈন। তুরস্কের বোদরুম শহরে নুসরতদের বিয়ে অনুষ্ঠান সেজেছিল! বছর দেড়েক কাটতে না কাটতেই কি ভাঙনের মুখে কোটি টাকার বিয়ে?
গত কয়েকদিন ধরেই টালিগঞ্জের হাওয়ায় নুসরত-নিখিলের বিচ্ছেদ জল্পনা ভাসছে। তার মধ্যেই একে অন্যের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল আন ফলো করে দিলেন। যাতে ডিভোর্সের জল্পনায় আরও ইন্ধন জুগিয়েছে। সম্প্রতি অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর সঙ্গে নুসরতের ঘনিষ্ঠতা গড়ে উঠেছে এমন খবর ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে দুজনে রাজস্থানেও বেড়াতে গিয়েছিলেন। তার ভিডিও, ছবিও ছড়িয়ে পড়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও এ নিয়ে নুসরত, নিখিল কেউ মুখ খোলেননি।
এমনিতে সিনেমা পাড়ায় এরকমই হয়। এই যাঁর জাঁকজমক বিয়ে হচ্ছে দুম করে তাঁর ডিভোর্স হয়ে যায়। তবে আপাতত নুসরত-নিখিলই খবর টলি পাড়ায়।
বিয়ের পর থেকে নিখিল-নুসরত সুখী দাম্পত্যের ছবি তৈরি করেছিলেন। ইসকনে রথ টানতে যাওয়া থেকে চালতা বাগানের মণ্ডপে সিঁদুর খেলা– নুসরত নিখিল হাজির। ভুলে গেলে চলবে না বিয়ের জন্য বিদেশে গিয়ে একেবারে শেষ পর্বে সাংসদ হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন নুসরত। মাথা ভরা সিঁদুর, মেহেন্দি ভরা হাতে হাতে শাঁখা-পলা পড়ে শপথ নিয়েছিলেন তিনি। যাদবপুরের সাংসদ মিমি ছিলেন কনে পক্ষ। তিনিও বান্ধবীর বিয়ের জন্য শপথ নিতে পারেননি। পরে নিয়েছিলেন।
এখন সেই বিয়ে নিয়েই সংশয়!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *