দেশে আসছে রাশিয়ার ভ্যাকসিন ‘স্পুটনিক-৫’

image_pdfimage_print

করোনাভাইরাস প্রতিরোধক ভ্যাকসিন হিসেবে পৃথিবীতে সর্বপ্রথম অনুমোদন পাওয়ায় রাশিয়ার ‘স্পুটনিক-৫’ দেশে আসার জন্য ছাড়পত্র (নন অবজেকশন সার্টিফিকেট) পেয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল মো. মাহবুবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
তবে, ওষুধ প্রশাসন অধিদপ্তর জানিয়েছে, ভ্যাকসিনটি শুধু রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত রাশিয়া, বেলারুশ ও ইউক্রেনের নাগরিকদের ওপর প্রয়োগ করা হবে।
মাহবুবুর রহমান জানান, প্রাথমিকভাবে রাশিয়ায় উৎপাদিত এক হাজার ভ্যাকসিন অর্ডার করা হয়েছে। ‘স্পুটনিক-৫’ এর অনাপত্তিসূচক সনদ (এনওসি) দেওয়া হয়েছে। এই টিকার সম্পূর্ণ দায়দায়িত্ব রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত রাশিয়ান কর্তৃপক্ষের।
এতে বলা হয়েছে, আমদানিকৃত এ টিকা শুধু পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কর্মরত রাশিয়ান স্টেট অ্যাটমিক অ্যানার্জি করপোরেশনের রাশিয়া, বেলারুশ ও ইউক্রেনের নাগরিকদের দেওয়া হবে। ইস্যুর তারিখ থেকে পরবর্তী ছয় মাস অনাপত্তিপত্র বলবৎ থাকবে।
চিঠিতে বলা হয়েছে, টিকা প্রয়োগের পর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিলে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর দায়ী থাকবে না। এর সব দায়-দায়িত্ব বহন করবে রাশিয়ান স্টেট অ্যাটমিক অ্যানার্জি করপোরেশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *