ট্রাম্প বাইডেনের সঙ্গে আলাপ করবেন না, নিজের ও পরিবারের জন্য দায়মুক্তি নিশ্চিত করতে চাইবেন

image_pdfimage_print

ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতার শেষ সময়ে তিনি কি কি করতে পারে এ নিয়ে লস এঞ্জেলস টাইমসের একটি প্রতিবেদনে এসব তথ্য তুলে ধরা হয়েছে।
গত এক শতাব্দীর মধ্যে ট্রাম্পই হবেন প্রথম বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট যিনি নতুন প্রেসিডেন্টের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন না। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ের পরেও তাকে কোনো ফোন কল করেননি ট্রাম্প। আমন্ত্রণ জানাননি হোয়াইট হাউজেও। নির্বাচনের পূর্বে বিতর্কের পর এখন পর্যন্ত বাইডেনের সঙ্গে কোনো কথাই বলেননি ট্রাম্প। তবে ১৯শে জানুয়ারি রাত ব্লেয়ার হাউজে থাকার জন্য জো বাইডেনকে আমন্ত্রণ জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ। অভিষেকের পূর্বে ঐতিহ্যগতভাবে চা পার্টির যে আয়োজন হয়ে থাকে এখানে ট্রাম্প থাকবেন না।
গত ডিসেম্বরে ট্রাম্প জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মাইকেল ফ্লিন, সাবেক প্রচারণা চেয়ারম্যান পল মানাফোর্ট এবং জামাতা জারেড কুশনারের বাবাকে ক্ষমা করেছেন। ট্রাম্প এখন শেষ সময়ে আরো কয়েকজন কাছের মানুষের জন্য দায়মুক্তি নিশ্চিত করতে চাইতে পারেন।
অফিস ছাড়ার পূর্বে প্রেসিডেন্টরা একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকেন। সেখানে তাদের অর্জনগুলোকে শেষবারের মতো তুলে ধরেন। এবার তিনি সে অনুষ্ঠান না ও করতে পারেন।
সাধারণত শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান শেষেই বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ক্যাপিটল থেকে তার নতুন ঠিকানায় চলে যান। লস এঞ্জেলস টাইমস জানিয়েছে, আপাতত আগামী মঙ্গলবার ট্রাম্প ওয়াশিংটন ছাড়বেন এমন সম্ভাবনা ধরেই আগানো হচ্ছে। এদিন বাইডেন রাজধানীতে আসবেন। আবার উলে।টাও হতে পারে যে, বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানের আগেই ট্রাম্প ওয়াশিংটন ছেড়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *