টেক্সাসেও এগিয়ে বাইডেন

image_pdfimage_print

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস অঙ্গরাজ্য রিপাবলিকান দলের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। ১৯৭৬ সালের পর এখন পর্যন্ত কোনো প্রেসিডেন্ট নির্বাচনেই এই অঙ্গরাজ্য থেকে জয় পাননি কোনো ডেমোক্র্যাট প্রার্থী। কিন্তু মাত্র নয় দিন আগে প্রকাশিত এক জনমত জরিপে ডেমোক্রেটিক দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ও সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন অঙ্গরাজ্যটিতে ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের চেয়ে কিছুটা এগিয়ে গেছেন। ব্যবধান কম হলেও নির্বাচনের ঠিক আগে আগে টেক্সাসের মতো অঙ্গরাজ্যে বাইডেনের এই এগিয়ে যাওয়াটা আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম পলিটিকোর প্রতিবেদনে বলা হয়, এমনিতেই এবার টেক্সাসে দুই প্রার্থীর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলে মনে করা হচ্ছে। এই মনে হওয়াটাও লাল অঙ্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত টেক্সাসের জন্য অভিনব। এখন বাইডেন এখানে এগিয়ে যাওয়ায় টেক্সাসের ৩৮টি ইলেকটোরাল ভোট শেষ পর্যন্ত কোনদিকে যায়, তা নিয়ে ভীষণ আলোচনা হচ্ছে। গত সেপ্টেম্বর মাসেও অঙ্গরাজ্যটিতে বাইডেন থেকে ২ শতাংশ পয়েন্ট ব্যবধানে এগিয়ে ছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু এখন সম্ভাব্য ভোটারদের মধ্যে ট্রাম্প থেকে বাইডেন ৩ শতাংশ পয়েন্ট ব্যবধানে এগিয়ে। আর নিবন্ধিত ভোটারদের মধ্যে বাইডেন ট্রাম্প থেকে ২ শতাংশ পয়েন্টে এগিয়ে। এ ক্ষেত্রে বাইডেন এগিয়েছেন মূলত হিস্পানিক ভোটারদের নিজের দিকে টানার মাধ্যমে। সেপ্টেম্বরে পরিচালিত জনমত জরিপে হিস্পানিক ভোটারদের ৩০ শতাংশ বাইডেনকে সমর্থন দিয়েছিলেন। সর্বশেষ জরিপে এ সমর্থন হার বেড়ে ৪৮ শতাংশে দাঁড়ায়।

যুক্তরাষ্ট্রের অন্যতম জনবহুল অঙ্গরাজ্য টেক্সাস, যেখানে রয়েছে ৩৮টি ইলেকটোরাল ভোট। এই অঙ্গরাজ্যে ২০১৬ সালে জয় পেয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ১৯৭৬ সালে সাবেক প্রেসিডেন্ট জিমি কার্টারের পর আর কোনো ডেমোক্র্যাট প্রার্থী এই অঙ্গরাজ্যে জয় পাননি।

উল্লেখ্য, বন্দুক হামলায় হতাহতের ঘটনা টেক্সাসে বেশ নিয়মিত। গত ৯ অক্টোবরও অঙ্গরাজ্যটিতে বন্দুক হামলার ঘটনা ঘটেছে। আর ২০১৯ সালে টেক্সাসের এল পাসোতে হওয়া বন্দুক হামলায় ২৩ জন নিহত হয়। সে ঘটনার প্রতিক্রিয়া আন্দোলন পর্যন্ত গড়িয়েছিল। দাবি উঠেছিল ব্যক্তিগতভাবে বন্দুক রাখা ও তা বহনের আইন কঠোর করার। কিন্তু তাতে সাড়া দেয়নি ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। এ কারণেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে রেখে টেক্সাসে বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।

অন্যদিকে ৩ নভেম্বরের মার্কিন নির্বাচনের আগ মুহূর্তে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার ডেমোক্র্যাট প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেনের প্রচারণার নজর এখন ব্যাটলগ্রাউন্ড বা সুইং স্টেট খ্যাত ৯ রাজ্য। এগুলো হল- আরিজোনা, ফ্লোরিডা, জর্জিয়া, মিশিগান, মিনেসোটা, নর্থ ক্যারোলিনা, ওহাইও, পেনসেলভেনিয়া ও উইসকনসিনে। সাম্প্রতিক জরিপে দেখা গেছে, ফল নির্ধারক এসব রাজ্যে ট্রাম্পের চেয়ে এগিয়ে বাইডেন।

মিনেসোটার ভোটারদের মধ্যে বাইডেনের জনপ্রিয়তা বেশি। নর্থ ক্যারোলিনার জরিপেও বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন। ওহাইওতে বাইডেনের চেয়ে জরিপে ২ ভাগ এগিয়ে আছেন ট্রাম্প। আগের ৬টি নির্বাচনে এ রাজ্য কোনো রিপাবলিকান প্রার্থীকে ভোট না দিলেও ২০১৬ সালে পেনসেলভেনিয়ার ২০টি ইলেক্টোরাল ভোটই পেয়েছিলেন ট্রাম্প। তবে এবার ৪টি জরিপেই এ রাজ্যে ট্রাম্পের চেয়ে ৫ ভাগ এগিয়ে আছেন বাইডেন। আগের নির্বাচনে উইসকনসিনের ১০টি ইলেক্টোরাল ভোটই পেয়েছেন ট্রাম্প। রাজ্যটিতে ৩টি জরিপে দেখা গেছে বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন। বাকি একটি জরিপে দুই প্রার্থীর অবস্থানই সমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *