কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীদের হামলায় ১০ শিক্ষার্থী নিহত

image_pdfimage_print

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
আফগানিস্তানে কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুকধারীদের তাণ্ডবে অন্তত ১৯ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো ২২ শিক্ষার্থী। রোববার (১ নভেম্বর) ক্যাম্পাসে ইরানি বইমেলা উদ্বোধনের আগে এ ভয়াবহ হামলার ঘটনা ঘটে।

বিবিসি, আলজাজিরা জানায়, দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক মুখপাত্র তারিক আরিয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, বেশ কয়েকজন বন্দুকধারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে এবং শিক্ষার্থীদের লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে।

তারিক আরিয়ান বলেন, ‘কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলাকারীরা আফগানিস্তানের শত্রু, শিক্ষা ব্যবস্থার শত্রু।’

একটি বিস্ফোরণের পর কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে এ বন্দুক হামলা শুরু হয়। ফাতুল্লাহ মোরাদি নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, যে শিক্ষার্থীকে দেখেছে তাকেই গুলি করেছে বন্দুকধারীরা। এক দল শিক্ষার্থীর সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গেইট দিয়ে প্রাণে পালিয়ে বাঁচেন তিনি।

বিশ্ববিদ্যালয়টিতে আয়োজিত ইরানি বইমেলার উদ্বোধনের আগে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে ইরানের আধা-সরকারি সংবাদমাধ্যম আইএসএনএ জানিয়েছে।

৪০টির মতো ইরানি প্রকাশনী সংস্থা নিয়ে রবিবারের ওই বইমেলা উদ্বোধনে অতিথি হিসেবে থাকার কথা ছিল আফগানিস্তানে ইরানি রাষ্ট্রদূত বাহাদুর আমিনিয়ান এবং কালচারাল অ্যাটাচে মুজতবা নুরুজি।

রয়টার্সকে আফগান সরকারের এক শীর্ষ কর্মকর্তা জানায়, হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে ১৫ জন আহত বলে এক পুলিশ সূত্র জানিয়েছে।

ফারিদুন আহমাদি নামে এক শিক্ষার্থী জানান, ‘ক্লাসরুমে আমরা পড়ছিলাম, সেসময় ক্যাম্পাসের ভেতরে আচমকা গুলির শব্দ শুনি। সেসময় অনেক শিক্ষার্থী পালিয়ে বাঁচে। সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়েছিল তখন।’

সাম্প্রতিক একাধিক হামলার জন্য ইসলামি সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান জড়িত থাকলেও কাবুল বিশ্ববিদ্যালয়ে বন্দুক হামলার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি অস্বীকার করেছে তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *