করোনার দ্বিতীয় ওয়েভের উপর নির্ভর করছে বিমান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

image_pdfimage_print

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বিদেশ থেকে যারা আসবেন বিমানবন্দরে তাদের সবাইকে করোনা টেস্ট করা হবে, টেস্ট ছাড়া কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না।
মঙ্গলবার ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, কেউ যদি করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট নিয়ে আসে তাকেও টেস্ট করানো হবে। পিসিআর টেস্ট করে সবাইকে এক দিনের অবজারভেশনে রাখা হবে।
কারো রেজাল্ট যদি পজিটিভ আসে তাকে আইসোলেশন সেন্টারে পাঠিয়ে দিবো। নেগেটিভ আসলে তারা ১৪ দিনের আইসোলেশনে চলে যাবে। এ বিষয়ে আমরা কড়াকড়ি করছি এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এ নিয়ে যথেষ্ট কাজ করছে।
রোহিঙ্গা ইস্যু আমাদের একটি বড় সমস্যা উল্লেখ করে ড. মোমেন বলেন, এ নিয়ে অনেক দিন বহুপাক্ষীক আলোচনা চলছে। রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমার যাতে উদ্যোগী হয় এ জন্য চীন, জাপান ও ইউরোপীয় ইউনিয়নসহ বন্ধু দেশগুলো চাপ অব্যাহত রেখেছে।
রোহিঙ্গারা এখন যেখানে আছেন, সেখানে তিন বেলা খাচ্ছেন আর নানা অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছেন। ভাসানচর চমৎকার জায়গা। এখন পর্যন্ত ৩০৬ জনকে ভাসানচরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে বসবাস করা রোহিঙ্গা নারীরা কাজ শুরু করেছেন।
অনেক রোহিঙ্গা সেখানে যেতে ইচ্ছুক তবে বেশকিছু এনজিও ও বিদেশি শক্তি তাদের ভাসানচরে যেতে নিরুৎসাহিত করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *