কবর খুঁড়ে লাশের মাথা কেটে নিয়ে গেল দুর্বৃত্তরা

image_pdfimage_print

গত ৩১ অক্টোবর মারা যান ফজিলা খাতুন (৮৫)। মৃত্যুর ১১ দিন পর কবর খুঁড়ে লাশের মাথা কেটে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। রোমহর্ষক ও পাশবিক এ ঘটনাটি ঘটেছে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার জয়নগর কেন্দ্রীয় গোরস্থানে।
বুধবার (১১ নভেম্বর) রাতে এ ঘটনা ঘটলেও বৃহস্পতিবার (১২ নভেম্বর) সকালে স্থানীয়রা বিষয়টি জানতে পারেন। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।
ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ নাসির উদ্দীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
স্থানীয় ও মৃতের স্বজনদের বরাত দিয়ে ওসি জানান, ফজিলা খাতুন অসুস্থ ছিলেন। তিনি ১০ বছর আগে একবার স্ট্রোক করেছিলেন। মৃত্যুর আগে আরেকবার স্ট্রোক করেছিলেন। এ বয়সে তার কোনো শত্রু ছিল না বলেও পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন।
স্থানীয়রা জানান, তার মৃত্যুর পর যথারীতি মৃতদেহ দাফন করা হয়। বৃহস্পতিবার সকালে কবরস্থানের পাশের মক্তবে শিশুরা পড়তে এসে কবরটি খোঁড়া দেখতে পেয়ে গ্রামবাসীকে জানায়। তারা গিয়ে দেখেন মৃতদেহ থেকে শুধু মাথাটি বিচ্ছিন্ন করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।
ছলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ বাবলু মালিথা জানান, খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে তিনি ঘটনাস্থলে যান। পরে তিনি পুলিশে খবর দেন। এরপর ঘটনাস্থলে আসেন ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দীন।
ওসি শেখ নাসির উদ্দীন জানান, পরিবারের সম্মতিতে লাশটি আবার দাফন করা হয়েছে। এ ঘটনার পেছনের কোনো কারণ তারা খুঁজে পাননি। তিনি জানান, এ ব্যাপারে কেউ অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *