আদালতের বারান্দায় কেঁদে ফেরা দুই শিশুর মায়ের জামিন দিলেন হাইকোর্ট

image_pdfimage_print

চুরির মামলায় বাবা-মাকে কারাগারে পাঠানোতে ঢাকা জজ কোর্টের বারান্দায় কাঁদছিলেন দুই শিশু। বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) সুপ্রিমকোর্টের কয়েকজন আইনজীবী বিষয়টি বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চের নজরে আনলে শুনানি শেষে শিশুদের মাকে জামিন দেয়া হয়।
এই মামলা করেছে শিশু দুজনের নানী। তাই কারাগার থেকে বের হয়ে শিশুদের মা, তার মায়ের সাথে কোনো খারাপ আচরণ করলে জামিন বাতিল হবে মর্মে শর্ত জুড়ে দেয় হাইকোর্ট।
প্রসঙ্গত, নানী মোমেনা বেগম পারিবারিক কলহের জেরে নিজের মেয়ে ওয়াসিমা বেগম ও তার স্বামী তোফায়েলের বিরুদ্ধে চুরি ও মারধরের মামলা করেন। আর এ মামলায় গত শুক্রবার থেকে কারাগারে শিশুদের বাবা-মা। সেই থেকে শিশুদের দেখার কেউ নেই। পাঁচদিন ধরে মা-বাবা থেকে বিচ্ছিন্ন তারা।
বংশালের নিজ বাসার প্রতিবেশীদের ঘরেই আশ্রয় নিয়েছে দুই শিশু। তাদের হাত ধরেই মঙ্গলবার ২ ভাই বোন বাবা-মায়ের জামিনের জন্য বিচারক মো. মামুনুর রশিদের আদালতে যান। কিন্তু এদিন দুই শিশুটির বাবা-মাকে জামিন দেননি বিচারক।
উল্টো শিশুরা আদালতের ভেতরে কান্না করায়, দায়িত্বরত এক পুলিশ সদস্যকে শোকজ করেছেন আদালত।
এ মামলার আইনজীবী ইসমাইল হোসেন পাটোয়ারী জানান, দুই শিশুর বাবা-মায়ের জামিন না হওয়ায় তাদের ভবিষ্যত অনিশ্চিত। স্বজনদের কেউ কাছে না থাকায় প্রতিবেশীদের কাছে দুধের দুই শিশু কতোদিন থাকবে তা নিয়েও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *