আওয়ামী লীগে ফ্রি স্টাইলে কোনো কিছু করা যাবে না: ওবায়দুল কাদের

image_pdfimage_print

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরও বলেন, দলের উপ-কমিটির নেতাদের শৃঙ্খলা ও নিয়মকানুন মেনে রাজনীতি করতে হবে। এক ব্যক্তি একাধিক কমিটিতে থাকতে পারবে না। আগে যদি সহযোগী বা অন্য কোনো কমিটিতে নাম থাকে, তাহলে পদত্যাগ করে আসতে হবে। যারা দলের মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে মাঠে আছেন, তাদের বিরুদ্ধে দলের অবস্থান স্পষ্ট। বিদ্রোহীদের যারা উসকানি দিচ্ছেন, তাদেরও একই শাস্তি পেতে হবে। বিদ্রোহী ও উসকানিদাতাদের অবিলম্ব সরে না দাঁড়ালে দল কঠোর সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেবে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ না করে এবং নির্বাচনি আমেজ সৃষ্টি করলেই আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ হওয়ার সম্ভাবনা থাকতো বিএনপির। তারা নামেমাত্র নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচনের সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশ বিনষ্ট করতে সন্ত্রাসের পথ বেছে নিয়েছে। যেখানে কেন্দ্রে তাদের এজেন্টই ছিল না সেখানে বের করে দেওয়ার অভিযোগ অবান্তর ও ভিত্তিহীন। নির্বাচন নিয়ে মির্জা ফখরুল ইসলাম দায়িত্বজ্ঞানহীন বক্তব্য শিষ্টাচার বহির্ভূত।
শেখ হাসিনার সরকার নারীবান্ধব উল্লেখ করে পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে নারী অবমাননাকারীদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা কঠোর ভূমিকা নিয়েছেন। আওয়ামী লীগে তাদের দরজা চিরকালের জন্য বন্ধ করে দিয়েছেন। দেশের উন্নয়নে সব নারী বান্ধব কর্মসূচিকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ারও আহ্বান জানান তিনি।
শুক্রবার ধানমণ্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের মহিলা বিষয়ক উপ-কমিটির পরিচিতি সভায় তার বাসভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে মহিলা উপকমিটির নেতারা ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *